কুষ্টিয়ার মিরপুরে মাদ্রাসাছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় মাদ্রাসার সুপার মাওলানা আব্দুল কাদের আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন।

মঙ্গলবার (৬ অক্টোবর) বিকেল সাড়ে ৩টায় তিনি কুষ্টিয়ার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট প্রথম আদালতের বিচারক দেলোয়ার হোসেন তার জবানবন্দি রেকর্ড করেন।

জবানবন্দিতে ওই মাদ্রাসা সুপার ছাত্রীকে দফায় দফায় ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছেন।

নির্যাতিতা মেয়েটি মিরপুর উপজেলার পোড়াদহ ইউনিয়নের স্বরুপদহ চকপাড়া এলাকার সিরাজুল উলুম মরিয়ম নেসা মহিলা মাদ্রাসার আবাসিক ছাত্রী। গত রোববার (৪ অক্টোবর) ফজরের নামাজের সময় মাদ্রাসার সুপার মওলানা আব্দুল কাদের মেয়েটিকে নিজ কক্ষে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করেন। পরে রাত ৮টার দিকে মেয়েটিকে নিজ কক্ষে ডেকে দ্বিতীয় দফা ধর্ষণ করেন তিনি। বিষয়টি কাউকে না জানানোর জন্য মেয়েটিকে শাসিয়েও দেন সুপার।

এ ঘটনায় মেয়েটির বাবা ধর্ষক আব্দুল কাদেরের বিরুদ্ধে সোমবার (৫ অক্টোবর) মিরপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। পরে রাতে পুলিশ আব্দুল কাদেরকে পোড়াদহ এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মিরপুর থানা পুলিশের উপ-পুলিশ পরিদর্শক (এসআই) আতিক জানান, আব্দুল কাদের তার জবানবন্দিতে দফায় দফায় ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছেন।