ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের দুই নেতার সঙ্গে বৈঠক করায় তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগানের প্রতি চটেছে যুক্তরাষ্ট্র।

এ ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে মঙ্গলবার মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় একটি বিবৃতিও প্রকাশ করেছে।

সম্প্রতি তুর্কি সরকার এক বিবৃতিতে জানায়, প্রেসিডেন্ট এরদোগান হামাসের রাজনৈতিক শাখার প্রধান ইসমাইল হানিয়া ও তার একজন প্রতিনিধিকে স্বাগত জানিয়েছেন।

এরপরই মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়, তারা (হামাস) বিশেষ করে বিশ্ব সন্ত্রাসী। যুক্তরাষ্ট্রের কাছে তথ্য রয়েছে তাদের একজন সন্ত্রাসী হামলা, ছিনতাই ও অপহরণসহ বিভিন্ন সন্ত্রাসী কার্যক্রমের সঙ্গে জড়িত রয়েছে।

এতে আরও বলা হয়, হামাসের মতো একটি ‘সন্ত্রাসী সংগঠনের’ সঙ্গে এরদোগানের তৎপরতা তুরস্ককে কেবল আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় থেকেই বিচ্ছিন্ন করে তুলবে। এটি ফিলিস্তিনিদের জন্যও ক্ষতিকর।

মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর বলছে, চলতি বছরে শনিবারের বৈঠক নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো হামাস নেতাদের স্বাগত জানিয়েছেন এরদোগান। এর আগে গত ফেব্রুয়ারিতে দলটির নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে মিলিত হন তুর্কি প্রেসিডেন্ট।