বিজয়ের মাস ডিসেম্বরের শুরুতেই আমেরিকায় প্রবাসীরা বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের জন্মশত বার্ষিকী তথা ‘মুজিব বর্ষ’ উদযাপনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন। শনিবার সন্ধ্যায় জ্যাকসন হাইটসে স্কলাস্টিকা মিলনায়তনে নিউইয়র্কে দু’দিনব্যাপী ‘বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ সম্মেলন’র প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়। 

এতে সভাপতিত্ব করেন ২৫১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটির আহবায়ক মুক্তিযোদ্ধা-বিজ্ঞানী নূরন্নবী। সম্মেলন কমিটির প্রধান সমন্বয়কারি আব্দুল কাদের মিয়াকে পাশে নিয়ে প্রস্তুতি সভার সঞ্চালনা করেন সদস্য-সচিব ও নিউইয়র্ক মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জাকারিয়া চৌধুরী। এ সময় জানানো হয় যে, আগামী বছর ২৮ ও ২৯ মার্চ  নিউইয়র্ক সিটির লাগোয়ার্ডিয়া ম্যারিয়ট হোটেলের বলরুমে ‘মুজিব বর্ষ’ উপলক্ষে এ সম্মেলনে থাকবে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধুর বর্ণাঢ্য জীবন নিয়ে আলোচনা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, চলচ্চিত্র প্রদর্শনী, কাব্য জলসা, বইমেলা ও জয়বাংলা কনসার্ট।  দেশ ও প্রবাসের খ্যাতিমান ব্যক্তিবর্গ ছাড়াও বঙ্গবন্ধুকে জানেন এমন বিদেশীরা থাকবেন সম্মেলনের বিভিন্ন পর্বে। এ ব্যাপারে প্রাথমিক বাজেট ধার্য করা হয়েছে ৬৭ হাজার ডলার। 

প্রস্তুতি সভায় বিশিষ্টজনদের মধ্যে আরো ছিলেন কণ্ঠযোদ্ধা রথীন্দ্রনাথ রায় এবং শহীদ হাসান, মুক্তিযোদ্ধা রেজাউল বারি, লেখক বেলাল বেগ, সংগঠক রেফায়েত উল্লাহ চৌধুরী, মিশুক সেলিম, সুব্রত তালুকদার, শুভ রায়, জাফরউল্লাহ, এটিএম রানা, এটিএম মাসুদ, শাহাবউদ্দিন চৌধুরী লিটন, স্বীকৃতি বড়–য়া, মোর্শেদ আলম, আমজাদ হোসেন, তাহমিনা শহীদ, মুমু আনসারী প্রমুখ।  এ সম্মেলন কমিটিতে বিভিন্ন অঙ্গরাজ্য থেকেও প্রতিনিধি রয়েছেন। 
 
এদিকে, মুজিব বর্ষ উপলক্ষে নিউইয়র্ক সিটির ঐতিহাসিক একটি ভেন্যুতে উৎসবের প্রস্তুতি নিচ্ছে নিউইয়র্কে বাংলাদেশ কন্স্যুলেট। শনিবার সন্ধ্যায় জ্যাকসন হাইটসে পিএস ৬৯ এ ‘বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অব পারফর্মিং আর্টস’ (বিপা)র ‘আনন্দ তরঙ্গ’ সমাবেশে বক্তব্যকালে কন্সাল জেনারেল সাদিয়া ফয়জুননেসা বলেন, ‘মুজিব বর্ষ উপলক্ষে আমরা প্রবাস প্রজন্মের সমন্বয়ে বিশেষ একটি উৎসবের প্রস্তুতি নিয়েছি। সে জন্যে জানুয়ারির শেষ সপ্তাহ থেকে ১৭ মার্চের আগ পর্যন্ত টানা দু’মাস রিহার্সেল চলবে কন্স্যুলেট ভবনে। নিউইয়র্কে জন্মগ্রহণকারি শতাধিক শিশু-কিশোর এই রিহার্সেলে অংশগ্রহণের সময়েই জাতির পিতা এবং তার অবিস্মরণীয় নেতৃত্ব সম্পর্কে জানতে সক্ষম হবে।’

নিউইয়র্কে বাংলা ভাষা ও সংস্কৃতির ফল্গুধারা নতুন প্রজন্মে প্রবাহিত করতে বহুবছর যাবত কর্মরত এই ‘বিপা’র উদ্যোগেও শিশু-কিশোর উৎসবের প্রস্তুতি চলছে মুজিব বর্ষে। আবৃত্তি, দেশাত্মবোধক সঙ্গীত ও নৃত্য বিষয়ে অনূর্দ্ধ ১৮ বছরের তরুণ-তরুণীদের মধ্যে ‘বিষয়ভিত্তিক প্রতিভা অন্বেষন’ করা হচ্ছে। এজন্যে বিপার ক্যাম্প বসবে ৪ জানুয়ারি শনিবার বেলা ১২টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ব্রঙ্কসের পিএস ১০৬, ৫ জানুয়ারি রোববার একই সময়ে ব্রুকলীনে পিএস ১৭৯, ১০ জানুয়ারি শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত জ্যামাইকায় পিএস ১৮২, ১২ জানুয়ারি রোববার বেলা ১২টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত উডসাইডে পিএস১২ তে। 

বিপার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে, প্রতি বিষয়ে প্রতিযোগিতার মাধ্যমে নির্দিষ্টসংখ্যক তরুণ-তরুণী বাছাই করা হবে। নির্বাচিত এসব তরুণ-তরুণী বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন উপলক্ষে ১৪ মার্চ পরিকল্পিত একটি বিশেষ অনুষ্ঠানে অংশগ্রহনের সুযোগ পাবে। চিত্রাঙ্কন কর্মশালার পর অংশগ্রহণকারীরা চিত্রাঙ্কন করবে ‘বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ।’ প্রতিভা অন্বেষণে অংশগ্রহণকারি সকলকে বিশেষভাবে আপ্যায়ন করা হবে ১৫ মার্চ। এতে অংশগ্রহণে আগ্রহী এবং উৎসব সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে যোগাযোগ করতে হবে ৯১৭-৬৭৪-৪৭৪৬ , ৬৪৬-২৭০-৪৯৯৫, ৯২৯-২৯৩-৫৫৩৬, ৯১৭-৮২৫-৭৩০৯, ৬৪৬-৩০০-১৪০১ অথবা ৩৪৭-২৩৭-১৬২৮ নম্বরে।