সংযুক্ত আরব আমিরাতে প্রথমবারের মতো বাংলা গানের কিংবদন্তি শাহ আবদুল করিমের প্রয়াণ দিবস উপলক্ষে বাউল করিম উৎসব করেছে সংহতি সাহিত্য পরিষদ আমিরাত শাখা।

শারজাহে বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সমিতির হলরুমে অনুষ্ঠিত উৎসবে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি গুলশান আরা। সাংস্কৃতিক সম্পাদক তিশা সেনের পরিচালনায় স্বাগতিক কথা দেন সাধারণ সম্পাদক ছড়াকার লুৎফুর রহমান।

উৎসবে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কনস্যুলেট দুবাইয়ের প্রথম সচিব (শ্রম) ফকির মনোয়ার হোসেন, দূতালয় প্রধান প্রবাস লামারং। এ সময় ফকির মনোয়ার হোসেন, শাহ আব্দুল করিমের অসাম্প্রদায়িক আর বাউলতত্ত্বের নানাদিক নিয়ে আলোচনা করেন।

শাহ আবদুল করিমের জীবনের উপর বক্তব্য দেন বাংলাদেশ সমিতি শারজাহের সিনিয়র সহ-সভাপতি ইসমাইল গনি চৌধুরী, সুনামগঞ্জের কৃতি সন্তান হাজী শফিকুল ইসলাম প্রমুখ। এ সময় করিম শাহের জীবন নিয়ে শাকুর মজিদ রচিত ‘ভাটির পুরুষ’ ও ‘মহাজনের নাও’ প্রদর্শন করা হয়।

শাহ আব্দুল করিম রচিত নানা কবিতা গান পরিবেশন করেন সাইদা দিবা, জসিম উদ্দিন পলাশ, আজাদ লালন, শম্পা শফিক, জাবেদ আহমদ মাসুম, সঞ্জয় ঘোষ, বঙ্গ শিমুল, সালাউদ্দিন, জসিম ওমর, তিথী, শেরন, আরিফ, রোকসানা খানমসহ আরো অনেকে।

এ সময় বাদ্যযন্ত্রে ছিলেন অজিত, শিপন, আরিফ। দক্ষ হাতের যন্ত্র পরিচালনায় মরুর বুকে বাউলিয়ানায় কাটে প্রবাসীদের সময়। অনুষ্ঠানে প্রথমবারের মতো শাহ আব্দুল করিম নিয়ে এমন আয়োজন করায় সংহতি আমিরাতকে ধন্যবাদ জানায় প্রবাসীরা।

অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন সংহতির আফজাল সাদেকিন, মামুন আহমদ, জাবেদ আহমদ, অনুপ সেন ও রূপশ্রী সেন।