লস এঞ্জেলেসে আগামী ৬ ও ৭ জুলাই ২০১৯ হতে যাচ্ছে বৈশাখী মেলা। অনেকেই হয়তো মনে করবেন জুলাই মাসে বৈশাখী মেলা কেনো? তাদের জ্ঞাতার্থে, লস এঞ্জেলেস বৈশাখী মেলা প্রবাসে একটি দেশ ও জাতির কৃষ্টি তুলে ধরার প্লাটফর্ম, একটি মহা উৎসব। এই ঐতিহাসিক ধারাবাহিকতা যুগেরও অধিক সময়কাল ধরে চলে আসছে। এই মেলা প্রবাসী বাংলাদেশীদের প্রাণের উৎসবে পরিণত হয়েছে।

নতুন প্রজন্মদের শেকড়ের সন্ধান দিতে এ এক অনন্য ধারা। নাড়ীর টানে দেশেল সংস্কৃতিকে প্রবাসের মাটিতে তুলে ধরার এ একটি অন্যরকম প্রয়াস। যেখানে সমবেত হয়ে প্রবাসীরা এক মহা মিলন মেলায় পরিণত করে এ মেলাকে। বিগত দিনে এই বৈশাখী মেলা কমিটি কতৃক পরিচালিত হতো। নতুন সংগঠন তৈরি হয়েছে বৈশাখী মেলা কমিটির দ্বারা। যার নাম ‘বাংলাদেশী আমেরিকান সোসাইটি (বিএএস), এই সংগঠনের নামে এখন থেকে বৈশখী মেলা উদযাপিত হবে। দু’দিন ব্যাপী মেলায় থাকবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং দেশি খাদ্য ও পণ্যের স্টল সমূহ।

মেলার বিশেষ আকর্ষণ মাইলস ব্যান্ডের ৪০ বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠান এবং লালন সম্রাজ্ঞী ফরিদা পারভিনের সঙ্গীতানুষ্ঠান। এছাড়া লস এঞ্জেলেসের জনপ্রিয় শিল্পীবৃন্দও উপস্থিত থাকবেন।

বৈশাখী মেলা ২০১৯ এর কনভেনর জানান, এবছর প্রচুর মানুষের সমাগম ঘটবে উক্ত মেলায়। নতুন আঙ্ঘীকে মেলা উপস্থাপিত হবে। তিনি ক্যালিফোর্নিয়ার সকল প্রবাসী বাংলাদেশী কমিউনিটিদের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন মেলায় অংশগ্রহণের জন্য। আমেরিকার বুকে লিটল বাংলাদেশে বসে দেশের সংস্কৃতিকে লালন করে উৎসবে মেতে উঠতে সবার সহযোগীতা কামানা করেন তিনি।