রাজধানী দোহার পাঁচ তারা হোটেল ক্রাউনে প্লাজার হলরুমে অনুষ্ঠিত ‘পার্টনারস অব বাংলাদেশ’ শিরোনামে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর জুতসই এ আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কাতারে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আসুদ আহমেদ।

কাতারে বাংলাদেশ ও বাংলাদেশিদের দ্বিপক্ষীয় সার্বিক ক্রমবর্ধমান উন্নয়ন বৃদ্ধিতে যে সব বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান অগ্রণী ভূমিকা রাখছে তাদেরকে সন্মামাননা দেয়াই ছিল এ অনুষ্ঠানের মূল লক্ষ্য। একটি বৃহত্তর সম্ভাবনাকে সামনে রেখে এ ধরণের আয়োজন কাতারস্থ বাংলাদেশি কোন সংগঠনের এই প্রথম এবং অপ্রতিম। অনুষ্ঠানে কাতারের শীর্ষ ব্যবসায়ী, বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা, বহুজাতিক প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহী, স্কলার, স্থানীয় বাংলাদেশি মূলধারার ব্যবসায়ী ও পেশাজীবীরা উপস্থিত ছিলেন।
বিএফকিউ’র সদস্য অধ্যাপক ড: কাজী এবং প্রকৌশলী তাসমিয়া প্রিয়াঙ্কার যৌথ সঞ্চালনায় তিনটি ভিন্ন ক্যাটাগরিতে মোট ছয়টি খ্যাতনামা প্রতিষ্ঠান ও উদ্যোক্তাদের হাতে সন্মাননা তুলে দেন রাষ্ট্রদূত আসুদ আহমেদ ও বিএফকিউ’র সভাপতি ইফতেখার আহমদ।

প্রথম ক্যাটাগরির মানদণ্ডে যে সব কাতারি প্রতিষ্ঠানে এক হাজারের বেশি বাংলাদেশি কর্মরত আছে সে সকল প্রতিষ্ঠান যথাক্রমে আল জাবের গ্রুপ, কিউডিভিসি, কিউ-এসবিজি কনস্ট্রাকশন, পাওয়ার ইন্টারন্যাশনাল হোল্ডিং কে সন্মাননা প্রদান করা হয়।

দ্বিতীয় ক্যাটাগরিতে আমদানি ও রপ্তানির মাধ্যমে যে সব কাতারি প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশের অর্থনীতি ও উন্নয়নে সহায়ক ভূমিকা পালন করছে তাদের যথাক্রমে এরাবিয়ান এক্সচেঞ্জ ও কাতার রাসায়নিক ও পেট্রোকেমিক্যাল বিপণন ও বিতরণ কোম্পানি(মুন্টাজাত) পক্ষে তাদের প্রতিনিধিরা সন্মাননা গ্রহণ করেন।

তৃতীয় ক্যাটাগরিতে কাতারে বাংলাদেশি সফল উদ্যোক্তা হিসেবে সন্মাননা গ্রহণ করেন গোল্ডেন মার্বেল কোম্পানির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জালাল আহমেদ।

অনুষ্ঠানের শুরুতে বিএফকিউ প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ও বিশিষ্ট ব্যাংকার শাহেদ আহমদ বাংলাদেশে সরাসরি বিনিয়োগ ও শতভাগ মালিকানার সুযোগ-সুবিধা নিয়ে বিশদ এক পাওয়ার পয়েন্ট উপস্থাপনা করেন। রিচমন্ড কনসালট্যান্ট এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও বিএফকিউ’র সদস্য ইসরাত আরা ইউনুস বাংলাদেশ দূতাবাস ও বিএফকিউ’র যৌথ আয়োজনে খুব শিগ্রই ‘মেড ইন বাংলাদেশ’ নামে প্রথম বাংলাদেশি বাণিজ্য ও বিনিয়োগ মেলার ঘোষণা দেন।

রাষ্ট্রদূত তার ভাষণে বিএফকিউ’র সকল সৃজনী উদ্যোগকে স্বাগত জানান। কাতারে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উন্নত করতে দুই দেশের বিভিন্ন স্তরে সম্পর্ক উন্নয়নের ক্ষেত্রে কাজ করার জন্য বাংলাদেশ ফোরাম কাতারকে ধন্যবাদ জানায় রাষ্ট্রদূত আসুদ আহমেদ। পাশাপাশি বিএফকিউ এর প্রথম বার্ষিকী উপলক্ষে সকল সদস্যদের কে তিনি অভিনন্দন জানান। রাষ্ট্রদূত ‘পার্টনার্স অব বাংলাদেশ’ পুরস্কার বিজয়ীদের আন্তরিক অভিনন্দন জানান।