হাকিকুল ইসলাম খোকন, নিউইয়র্ক, যুক্তরাষ্ট্র প্রতিনিধি:  মহান স্বাধীনতা আন্দোলনের রূপকার।একটি স্বাধীন দেশ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে১৯৬২’সালে গঠিত নিউক্লিয়াসের পুরোধা।বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে অবস্থান করছেন। যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থানকালে তিনি তিনবার প্রাইভেট ক্লিনিকে পায়ের ব্যাথার চিকিৎসা গ্রহন করেছেন।
৭ জুলাই, ২০১৮ অকস্মাৎ মস্তিষ্কে প্রচন্ড ব্যাথা অনুভব করলে তাৎক্ষনিকভাবে তাঁকে নিউইয়র্কের এলমহার্ষ্ট হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নিয়ে যাওয়া হয়।সেখানে ক্যাটস্ক্যানিং সহ রক্ত ও হার্টের বিভিন্ন ধরনের পরীক্ষা নেয়া হয়।হাসপাতালের জরুরী বিভাগে ২৪ ঘন্টা অবস্থানের পর ডাক্তারগণ পূর্ণ বিশ্রাম ও নিয়মিত ঔষধ সেবনের জন্য পরামর্শ দেন।
যুক্তরাষ্ট্রে আসার আগে তিনি গত বছর হিপ সংক্রান্ত জটিল অপারেশনের পর এ বছর ১৮ দিন ফলোআপ চিকিৎসা গ্রহন করেন সাইপ্রাসের Near East University হসপিঠালে।সেখানে দুই হাঁটু ও দুই বাহুর চিকিৎসা করা হয়।
আগামী ২৬’শে জুলাই সিরাজুল আলম খানের দেশে ফেরার কথা ছিলো।কিন্তু নিউইয়র্ক এলমহার্ষ্ট হাসপাতালের ডাক্তারদের পরামর্শে এক্ষুনি বড় ধরনের এবং দীর্ঘ আকাশবাহী বিমানযাত্রা পরবর্তি পরামর্শ না দেয়া পর্য্ন্ত স্থগিত  করার কথা বলাতে সিরাজুল আলম খানের বাংলাদেশে ফেরা বিলম্বিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।বর্তমানে তিনি নিউইয়র্কের বিশিষ্ট রাজনৈতিক ও কমিউনিটি নেতা শামসুদ্দিন আহমেদ শামীম আহমদের বাসায় অবস্থান করছেন। সম্পূর্ণ বিশ্রাম নিচ্ছেন এবং প্রতিনিয়ত এলমহার্ষ্ট হাসপাতালের ডাক্তারদের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছেন।
Previous post ইউরোপীয় ইউনিয়ন আমার শত্রু : ট্রাম্প
Next post ডিটেনশনে জাকিরের আপডেট
Close