তুরস্কের ২০১৬ সালের ব্যর্থ সামরিক অভ্যুত্থানের ঘটনায় ইউরোপের দেশ জার্মানিতে রাজনৈতিক আশ্রয় চেয়েছেন দেশটির ৩ শতাধিক কূটনীতিক।

জার্মান স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, তুরস্কের ব্যর্থ সামরিক অভ্যুত্থানের পর থেকে এ পর্যন্ত জার্মানিতে আশ্রয় প্রার্থীদের মধ্যে তুরস্কের কূটনৈতিক পদমর্যাদার অথবা পদস্থ কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালনকারী ব্যক্তিরা রয়েছেন। তাদের স্ত্রী ও সন্তানসহ আশ্রয় প্রার্থীদের সংখ্যা ১ হাজার ১৭৭ জন।

এর আগে ২০১৬ সালের ওই অভ্যুত্থান প্রচেষ্টার পর বেশ কয়েকটি ইস্যুকে কেন্দ্র করে জার্মানি ও তুরস্কের সম্পর্কে তিক্ততা সৃষ্টি হয়। ব্যর্থ অভ্যুত্থানের পর তুর্কি সরকার দেশে যে ব্যাপক দমন অভিযান চালায় বার্লিন তার তীব্র সমালোচনা করে। এ ছাড়া, তুরস্ক সরকার দেশটিতে অবস্থানকারী বেশ কয়েকজন জার্মান নাগরিককে আটক করে।

এদিকে আঙ্কারার অভিযোগ, তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোগান সরকারের বিরুদ্ধে ‘সন্ত্রাসী’ গোষ্ঠীগুলোকে পৃষ্ঠপোষকতা দিচ্ছে জার্মানি।

Previous post তুরস্কের পার্লামেন্ট নির্বাচন আজ
Next post প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে কাতারে আওয়ামী লীগের আলোচনা সভা
Close