কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বীরোত্তম বলেছেন, আওয়ামী লীগ যতই লাফালাফি করুক নিরপেক্ষ ভোট হলে সারা দেশে ২০টির বেশি আসন পাবে না। আর যদি চুরি করে ১৪ সালের (৫ জানুয়ারি) মতো ক্ষমতা যায় তাহলে পাঁচ মাসের বেশি ক্ষমতায় থাকতে পারবে না।

শনিবার বিকালে টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলার বহেড়াতৈল ইউনিয়ন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ আয়োজিত বহেড়াতৈল গণ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এক জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

কাদের সিদ্দিকী বলেন, খালেদা জিয়া চুরি করে নাই। রাজনৈতিক কারণে খালেদা জিয়া বাইরে থাকলে সরকারের অসুবিধা তাই তাকে জেলে রাখা হয়েছে। আমি যদি হাকিম হতাম তবে খালেদা জিয়াকে যে মুহূর্তে জেলে নেয়া হয়েছে সেই মুহূর্তে তাকে ডিভিশন দিতাম।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়া সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের স্ত্রী, একজন বীর মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী, দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী। তিনি কেন ডিভিশন পাবেন না? তার জন্য কেন ডিভিশন চাইতে হবে। তিনি যতদিন বেঁচে থাকবেন জেলে থাকলে ডিভিশন পাবেন, বাইরে থাকলে সম্মান পাবেন।

বহেড়াতৈল ইউনিয়ন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপদি আফাজ উদ্দিনের সভাপতিত্বে সমাবেশে কেন্দ্রিয় কৃষক শ্রমিক জনতালীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান খোকা বীরপ্রতীক, টাঙ্গাইল জেলা কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক এটিএম সালেক হিটলু, উপজেলা কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি আতাউর রহমান, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মীর জুলফিকার শামীম, কেন্দ্রীয় যুব আন্দোলনের সভাপতি হাবীবুন্নবী সোহেল প্রমুখ বক্তব্য দেন।

Previous post রাজপথে আন্দোলনের বিকল্প নেই : ফখরুল
Next post আগামী নির্বাচন ১৯৭০ সালের মতো গুরুত্বপূর্ণ
Close