ইরাক যুদ্ধের কারণে বিতর্কিত জর্জ ডব্লিউ বুশের আমলের প্রতিরক্ষা কর্মকর্তা জন বোল্টনকে যুক্তরাষ্ট্রের নতুন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে ট্রাম্প প্রশাসন। আগামী ৪ এপ্রিল দায়িত্ব গ্রহণ করবেন তিনি। খবর বিবিসির।

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প শুক্রবার এক টুইট বার্তায় এ তথ্য জানান। এইচ আর ম্যাকমাস্টারকে সরিয়ে জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার নতুন দায়িত্ব দেওয়া হলো বোল্টনকে।

এইচ আর ম্যাকমাস্টারকে ধন্যবাদ জানিয়ে ট্রাম্প তার টুইটে বলেন, ‌‘তিনি সব সময় আমাদের শুভাকাঙ্ক্ষী হয়ে থাকবেন।’

এদিকে নতুন দায়িত্ব পাওয়ার পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় টুইটারে জন বোল্টন বলেন, ‘ট্রাম্প প্রশাসনের সঙ্গে করার সুযোগ পেয়ে আমি গর্বিত। যুক্তরাষ্ট্রকে আরও নিরাপদ রাখতে সব ধরনের পদক্ষেপ নেওয়া হবে।’

জন বোল্টন সাবেক তিন মার্কিন প্রেসিডেন্ট রোনাল্ড রিগ্যান, সিনিয়র বুশ ও জর্জ ডব্লিউ বুশের আমলে প্রশাসনে দায়িত্ব পালন করেছেন। জর্জ ডব্লিউ বুশের আমলে তিনি  প্রতিরক্ষা কর্মকর্তার দায়িত্বে ছিলেন। ইরাকের তৎকালীন প্রেসিডেন্ট সাদ্দাম হোসেনের কাছে বিধ্বংসী অস্ত্র থাকার তথ্য তিনিই গণমাধ্যমে এনেছিলেন। তার এই ভুল তথ্যের কারণে এখনও ইরাকে যুদ্ধ চলছে। এছাড়া ইরান আর উত্তর কোরিয়াতেও হামলা চালানোর আহ্বান জানিয়েছিলেন বোল্টন।

দায়িত্ব গ্রহণের ১৪ মাসের মাথায় তিন তিনবার জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা নিয়োগ দিলেন ট্রাম্প প্রশাসন। ট্রাম্প প্রশাসনে অদলবদল যেনো সাধারণ বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

Previous post বিচার বিভাগ সরকারের ইচ্ছা পূরণের হাতিয়ার : রিজভী
Next post ট্রাম্পের প্রধান আইনজীবীর পদত্যাগ
Close