বিচার বিভাগ সরকারের ইচ্ছা পূরণের হাতিয়ার হিসেবে কাজ করছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

শুক্রবার সকালে রাজধানীর নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘দেশের বিচার বিভাগ সরকারি প্রভাবমুক্ত নয়, বরং বিচার বিভাগ সরকারের ইচ্ছা পূরণেরই হাতিয়ার হিসেবে কাজ করছে। প্রহসনের বিচারের মাত্রা দিনকে দিন বেড়েই চলেছে।’

খালেদা জিয়ার মামলায় সরকার একের পর এক ‘হস্তক্ষেপ’ করে নোংরা খেলা খেলছে— এমন মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘এটা দেখে গোটা জাতি শুধু বিস্মিত নয়, ঘৃণায় ধিক্কার জানাচ্ছে।’

রিজভী অভিযোগ করেন, ‘সরকার ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে সাজা দিয়ে বেগম খালেদা জিয়াকে বন্দী করার পর এখন তার জামিন বিলম্ব করতে ওকালত নামায় স্বাক্ষর নিতে পর্যন্ত বাধা প্রদান করছে। বিএনপি চেয়ারপারসনকে জেলে বন্দী করার পর তাকে আরও চারটি মিথ্যা, সাজানো মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। অনেকবার চেষ্টা করেও আইনজীবীরা ওকালতনামায় বেগম খালেদা জিয়ার স্বাক্ষর নিতে পারেননি কারাকর্তৃপক্ষের অসহযোগিতায়।’

তিনি বলেন, ‘গত কয়েক দিনে বেশ কয়েকটি মামলার ওকালতনামায় বেগম খালেদা জিয়ার সই নিতে গিয়ে কারা কর্তৃপক্ষের অনুমতি না পেয়ে আইনজীবীরা ফিরে এসেছেন। এ জন্য এসব মামলায় আইনি পদক্ষেপ নেয়া যাচ্ছে না। সরকার বেগম খালেদা জিয়াকে বন্দী করে রেখে যে এক ভয়ানক ফন্দি আঁটছে সেটা এখন সুস্পষ্ট হয়ে উঠছে।’

বর্তমান ভোটারবিহীন সরকার তাদের ক্ষমতাকে টিকিয়ে রাখতে নানা ষড়যন্ত্র অব্যাহত রেখেছে— মন্তব্য করে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘কোনো ষড়যন্ত্র কাজে আসবে না। গণতান্ত্রিক আন্দোলনের আপোসহীন নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে এবং বাংলাদেশে গণতান্ত্রিক সরকার প্রতিষ্ঠায় আন্দোলন সর্বব্যাপী তীব্র থেকে তীব্রতর করা হবে। সকল ষড়যন্ত্র নস্যাৎ করে দেশনেত্রীকে কারামুক্ত করা হবে এবং অচিরেই দেশে গণতান্ত্রিক সরকার প্রতিষ্ঠা হবে ইনশাল্লাহ।’

তিনি বলেন, ‘আজ সকালে সুপ্রিম কোর্ট বার নির্বাচনে জাতীয়তাবাদী তথা বিএনপি সমর্থিত প্যানেল সভাপতি সম্পাদকসহ ১০টি পদে বিপুলভোটে নির্বাচিত হয়েছেন। আমি বিএনপির পক্ষ থেকে তাদের এবং তাদেরকে যারা ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছেন তাদের অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। এ বিজয় দেশের বিচারাঙ্গনে সরকারি নগ্ন হস্তক্ষেপের প্রতিবাদ। দেশের বিচার বিভাগের এই চরম সংকটে সর্বোচ্চ আদালতের আইনজীবীরা সঠিক রায় দিয়ে বিচারালয়ে সরকারি নোংরা খেলার দ্ব্যর্থহীন প্রতিবাদ জানিয়েছেন।’

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, ভাইস চেয়ারম্যান এজেডএম জাহিদ হোসেন, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, সহ-দপ্তর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Previous post জয়নুল-খোকন আবারও সুপ্রিম কোর্ট বারের নেতৃত্বে
Next post যুক্তরাষ্ট্রের নতুন নিরাপত্তা উপদেষ্টা বোল্টন
Close