যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের দক্ষিণ এশিয়া বিষয়ক প্রধান উপদেষ্টা লিসা কার্টিস বলেছেন, ‘মিয়ানমরাকে আমরা চাপ দেব এমন পরিস্থিতি তৈরি করতে যেন বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গারা নিরাপদে এবং স্বেচ্ছায় নিজেদের বাড়িতে ফিরে যেতে পারে। এসব ব্যাপারে আমাদের ধারাবাহিকভাবে কাজ করে যেতে হবে।’

আজ রোববার পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলীর সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন লিসা কার্টিস। আজ ছিল তাঁর বাংলাদেশ সফরের শেষদিন। গত শুক্রবার তিনি বাংলাদেশ সফরে আসেন।

লিসা কার্টিস বলেন, ‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের ওপর যে নৃশংসতা চালানো হয়েছে সে ব্যাপারে আমাদের ডকুমেন্ট প্রয়োজন। যারা নৃশংসতা চালিয়েছে তাদের জবাবদিহিতার আওতায় আনতে হবে। নিশ্চিত করতে হবে আর যেন এরকম নৃশংসতা না হয়।’

লিসা কার্টিস জানিয়েছেন, মিয়ানমারের রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ওপর নৃশংসতার জন্য অভিযুক্ত দেশটির সেনা কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিতে গত ছয় মাসের নানা ধরনের তথ্য–উপাত্ত বিশ্লেষণ করছে যুক্তরাষ্ট্র। রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধানের জন্য বাংলাদেশের সঙ্গে কাজ করার পাশাপাশি মিয়ানমারের ওপর চাপ অব্যাহত রাখবে যুক্তরাষ্ট্র।

লিসা কার্টিস গত শুক্রবার তিন দিনের সফরে ঢাকায় আসেন। ওই দিনই রোহিঙ্গা পরিস্থিতি দেখতে সরাসরি কক্সবাজার যান তিনি। এমন এক সময়ে ডোনাল্ড ট্রাম্পের উপদেষ্টা বাংলাদেশে এলেন এবং কক্সবাজারে গেলেন যখন মিয়ানমার সেনা মোতায়েন করে রোহিঙ্গাদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে, উত্তেজনা সৃষ্টির পরিস্থিতি তৈরি করছে।
এ প্রসঙ্গে লিসা কার্টিসের মন্তব্য, তাঁরা সীমান্তের পরিস্থিতি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছেন।