শি জিনপিংকে অনির্দিষ্টকালের জন্য প্রেসিডেন্ট পদে রাখতে সংবিধান সংশোধন করতে যাচ্ছে চীন। এই লক্ষ্যে সংবিধান সংশোধনের সুপারিশ করেছে চীনের ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টি। পূর্বসূরিরা যে পাঁচ বছর মেয়াদে ক্ষমতায় থাকার ঐতিহ্য চালু করেছিলেন সেটি থেকে বেরিয়ে আসতে চাইছেন প্রেসিডেন্ট শি। এমনটাই দাবী বিশ্লেষকদের।

চীনে ২০০৪ সালের পর এই প্রথম সংবিধান সংশোধন করা হবে। এই ঘোষণা গত বছরের ডিসেম্বরে দেওয়া হয়েছিল। বিশ্লেষকরা তখন ধারণা করছিলেন, দুর্নীতিবিরোধী ন্যাশনাল সুপারভিশন কমিশন (এনএসসি) গঠনের জন্য সংবিধান সংশোধন করা হবে।

এদিকে, চীনের রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত সংবাদ সংস্থা শিনহুয়া জানায়, প্রেসিডেন্ট ও ভাইস প্রেসিডেন্ট দু’ দফার বেশি ক্ষমতায় থাকতে পারবেন না-সংবিধানের এই ধারা বাতিলের প্রস্তাব দিয়েছে কমিউনিস্ট পার্টি। আগামী মার্চের অধিবেশনে ন্যাশনাল পিপলস কংগ্রেসে (এনপিসি) ওই সংশোধন অনুমোদন পেতে হবে।

তবে, অনুমোদন পেতে খুব একটা সমস্যা হবে না। কেননা, স্বাধীনভাবে কিছু করার ক্ষমতা নেই পার্লামেন্টের।

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের জানুয়ারিতে গঠনতন্ত্রে ‘শি জিনপিংয়ের মতাদর্শ’ অন্তর্ভুক্ত করার প্রস্তাব দেয় দলের সর্বোচ্চ ফোরাম। এর ফলে মাও সেতুংয়ের পর তিনিই পার্টিতে সবচেয়ে ক্ষমতাধর ব্যক্তি হয়ে ওঠেন।