বিরুষ্কার প্রেম থেকে বিয়ে কোনো কিছুই মিডিয়ার আড়ালে ছিল না। তাদের প্রতিটি কর্মকাণ্ডই ছিল আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে। এবার তাদের চুম্বনের একটি ছবি ভাইরাল। অনুষ্কাকে বাহুবন্ধনীতে আবদ্ধ করে ‘ঠোঁটে ঠোট ব্যারিকেড’ গড়ে দিয়েছেন বিরাট কোহলি।

‘দ্য কিস’ বলতে এতদিন ধরে নিউইয়র্কের টাইমস স্কোয়ারের সামনে মার্কিন নাবিক আর এক নার্সের যে চুম্বন দৃশ্য অমরত্ব পেয়েছে, সেই নস্টালজিয়াকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিল বিরুষ্কা। কারণ, প্রখর সূর্য কিরণ আর চন্দ্রের আভাকে ম্লান করে দেওয়ার মত এক চুমুক চুমুতেই সব আলো শুষে নিয়েছেন বিরাট। দেবাশিস দত্তকেও বোধহয় এবার হাত কামড়াতে হচ্ছে, ‘ইস, বিরাটইজম লেখার আগে এই একটা চুমু কেন আমার হাতের নাগালে এল না!’

যা দেখছি সত্যি দেখছি তো? ‘ওয়ান অ্যান্ড অনলি’ -অনুষ্কাকে বাহুবন্ধনীতে আবদ্ধ করে ‘ঠোঁটে ঠোট ব্যারিকেড’ গড়ে দিয়েছেন বিরাট কোহলি। ওষ্ঠের মধ্যে ওষ্ঠ, যেন `স্মোক্স অ্যান্ড হুইস্কি`র স্বাদ নিচ্ছেন ভারত অধিনায়ক। ইনস্টাগ্রামের একটা পোস্টের মাধ্যমে মঙ্গলবারের `ড্রাই ডে`ও যেন হয়ে গেল আচ্ছন্ন!

প্রেমের সপ্তাহ বলতে যা বিশ্ব বোঝে, সেই `ভ্যালেন্টাইন উইক` পার হয়ে গিয়েছে অনেক আগেই। ৭ থেকে ১৪ (ফেব্রুয়ারি), গোটা বিশ্ব চকোলেট খেয়েছে, গোলাপ বিনিময় করছে, প্রেম নিবেদন করেছে, চুমুও খেয়েছে। তাহলে হঠাৎ ২০ ফেব্রুয়ারি এমন কী করলেন বিরাট?

`পরী`র জন্য আরও একটা `প্রেমকাব্য` রচনা করলেন ভারতীয় ক্রিকেটের ‘প্রিন্স’। বিরুষ্কার বিয়েটা যদি ‘ওয়েডিং অব দ্য ইয়ার’ হয়, তাহলে এই এক চুমুক চুমুকে বলতেই হচ্ছে `কিস অব দ্য সেঞ্চুরি`।

উল্লেখ্য, বিরাট কোহলি এখন দক্ষিণ আফ্রিকায়। অন্যদিকে নিজের ছবি নিয়ে ব্যস্ত অনুষ্কা। তবে নববিবাহিত দম্পতি যে ভৌগলিক দূরত্ব সরিয়ে দিয়ে একে অপরের মণিকোঠায় অধিষ্ঠিত হয়েছেন, এই ছবি তারই দৃষ্টান্ত