রাজপরিবারের সদস্য হতে অসংখ্য মানুষ পাওয়া যাবে যারা নিজের সবকিছু ছাড়তে প্রস্তুত। সেখানে সাধারণ পরিবারের ছেলেকে বিয়ে করার জন্য রাজকীয় পরিবারের মর্যাদা ত্যাগের জন্য প্রস্তুত জাপানি রাজকুমারী মাকো। গত বসন্তে এ খবর গণমাধ্যমে আসার পরপরই তা ব্যাপকহারে ছড়িয়ে পড়ে।

এ বছরের নভেম্বরে প্রেমিক কেই কুমুরোকে বিয়ের করার কথা ছিল ২৬ বছর বয়সী এ রাজকুমারীর।

কিন্তু শেষ পর্যন্ত পিছিয়ে গেছে রূপকথার সেই বিয়ে। জানিয়েছেন তারা এখনো বিয়ের জন্য প্রস্তুত নন। এ জন্য সমর্থক ও অনুসারীদের কাছে ক্ষমাও চেয়েছেন মাকো।

প্রায় ছয় বছর আগে টোকিওর ইন্টান্যাশনাল ক্রিশ্চিয়ান ইউনিভার্সিটিতে পড়ার সময় কেই কুমুরোর সঙ্গে মাকোর পরিচয় হয়।

কেউ কুমুরোকেও রাজপুত্র হিসেবে ডাকা হয়। সমুদ্রে পর্যটনের বিকাশ নিয়ে কাজ করায় ‘সমুদ্রের রাজপুত্র’ খেতাব পান তিনি। বর্তমানে আইন সংস্থার হয়ে কাজ করছেন কেউ কুমুরো।

আপাতত ২০২০ সালের তার সঙ্গে আগে মাকোর বিয়েটা আর হচ্ছে না। বিয়ে পরবর্তী জীবনের জন্য তারা আরও প্রস্তুতি নিতে চান, পরিকল্পনা করতে চান।

মাকো ও তার প্রেমিক একটি যৌথ বিবৃতিতে জানান, বিয়ের ঘোষণাটা একটু তাড়াহুড়ো করেই দেয়া হয়েছিল।

রাজপুত্র আকিশিনোর বড় মেয়ে মাকো জাপানের বর্তমান সম্রাট আকিহিতোর নাতনি।

আকিহিতো ২০১৯ সালের এপ্রিলে সিংহাসন ছাড়ছেন। মাকোর চাচা নারুহিতো জাপানের পরবর্তী রাজা হবেন বলে আশা করছেন।

নারুহিতোর পরে রাজা হওয়ার সম্ভাবনা আছে মাকোর বাবা ও তার ছোট ভাইয়ের।

জাপানি রাজপরিবারের বর্তমান সদস্য ১৯ জন। রীতি অনুযায়ী সাধারণতা নারী সদস্যদের রাজা করা হয় না। সূত্র : পিপল সাময়িকী