মালদ্বীপে সরকার ও সুপ্রিম কোর্টের মধ্যকার বিরোধের কারণে সৃষ্ট সংকট ক্রমে ঘনীভূত হচ্ছে। গতকাল সোমবার ১৫ দিনের জন্য জরুরি অবস্থা জারি করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট আবদুল্লাহ ইয়ামিন। এর মধ্য দিয়ে সন্দেহবশত যেকোনো ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার বা আটকের ক্ষমতা পেলেন দেশটির নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা। আর তারই জেরে গ্রেপ্তার হয়েছেন দেশটির প্রধান বিচারপতি আবদুল্লাহ সাঈদ। তার গ্রেপ্তারের খবর দিয়েছে বিবিসি।

রাত থেকেই সুপ্রিম কোর্ট ঘিরে রাখে পুলিশ। আদালতে যেসব বিচারপতিরা ছিলেন তারা সবাই সেখানে আটকে রয়েছেন বলে জানায় বিবিসি। আরো আটক করা হয়েছে মালদ্বীপের প্রায় তিন দশক ধরে ক্ষমতায় থাকা সাবেক রাষ্ট্রপতি মামুন আব্দুল গাইয়ুমকে।

এ ছাড়া আরেকজন সাবেক প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ নাশিদের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদের অভিযোগে চলমান আরো একটি মামলাকেও অসাংবিধানিক বলে ঘোষণা করেছিলেন সুপ্রিম কোর্ট। আর অ্যামেরিকার জাতীয় নিরাপত্তা কাউন্সিল এক টুইট বার্তায় হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছে, মালদ্বীপে কি হচ্ছে সারা দুনিয়া সেদিকে খেয়াল রাখছে।

বিবিসির সংবাদদাতা অলিভিয়া ল্যাঙ জানাচ্ছেন, মালদ্বীপে মানুষ ভীত-শঙ্কিত অবস্থায় আছে।
সূত্র : বিবিসি