যুক্তরাষ্ট্র জানিয়েছে, তারা ইরানের সঙ্গে সরাসরি আলোচনায় বসতে রাজি। ২০১৫ সালে ইরানের সঙ্গে করা ছয় জাতির পরমাণু চুক্তি পুনর্বহালের জন্য ইউরোপীয় ইউনিয়ন যে প্রস্তাব দিয়েছে, তা মেনে যুক্তরাষ্ট্র সরাসরি আলোচনায় প্রস্তুত রয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নেড প্রাইস বলেছেন, ইউরোপীয় ইউনিয়নের উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধিদের বৈঠকের আমন্ত্রণ পেলে তা গ্রহণ করবে যুক্তরাষ্ট্র। এসময় দেশটি ইরানের পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে কূটনৈতিক উপায় বের করতে তেহরানের সঙ্গে আলোচনা করবে।

ksrm
তেহরানের পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে ২০১৫ সালে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের পাঁচ স্থায়ী সদস্য (যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, চীন ও রাশিয়া) এবং জার্মানির সঙ্গে একটি চুক্তিতে একমত হয় ইরান। এই ছয় দেশের সঙ্গে ইরানের পরমাণু চুক্তি হয়।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের ডেপুটি মহাসচিব এনরিক মোরা বলেছেন, ‘অনানুষ্ঠিক’ আলোচনার জন্য বিভিন্ন পার্টিকে আমন্ত্রণ জানাতে প্রস্তুত রয়েছেন তিনি। মোরার এমন মন্তব্যের কয়েক ঘণ্টা পর যুক্তরাষ্ট্র এ ধরনের প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করলো।

এক টুইট বার্তায় মোরা লিখেছেন, এই চুক্তি একটি গুরুতর মুহূর্তের মুখে রয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র এবং সব অংশগ্রহণকারীর মধ্যে নিবিড় আলোচনা প্রয়োজন। উপায় খুঁজে বের করতে একটি অনানুষ্ঠানিক আলোচনার জন্য তাদের আমন্ত্রণ জানাতে আমি প্রস্তুত রয়েছি।

তবে ইরান এই বৈঠকের ব্যাপারে রাজি হবে কিনা সেটা এখনও স্পষ্ট নয়। কারণ ইরান শুরু থেকে বলে আসছে, আগে তাদের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা সরাতে হবে, তবেই পরমাণু চুক্তি নিয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবে তেহরান।