মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মুহাম্মদ বলেছেন, অতীতের গণহত্যার জন্য লক্ষ লক্ষ ফরাসীকে হত্যার অধিকার মুসলমানদের রয়েছে।

বৃহস্পতিবার ফ্রান্সের নিস শহরের একটি গির্জায় ছুরি হামলা চালিয়ে তিন জনকে হত্যার পর মাহাথির মুহাম্মদ তার ব্লগ ও টুইটারে লেখা একটি পোষ্টে এই কথা বলেছেন। স্থানীয় মেয়র হামলার ঘটনাকে `সন্ত্রাসবাদ’ বলে অভিহিত করেছেন।

মুসলিম বিশ্বের একজন সম্মানিত নেতা হিসেবে মাহাথির মুহাম্মদের (৯৫) খ্যাতি রয়েছে অনেক বছর ধরেই। তিনি বলেন, আমি মত প্রকাশের স্বাধীনতায় বিশ্বাসী কিন্তু অন্যকে অবমাননার জন্য এটি ব্যবহার করা উচিত নয়।

এক টুইটে তিনি লিখেছিলেন, অতীতের গণহত্যার জন্য মুসলিমদের ক্ষুব্ধ হওয়া এবং লক্ষ লক্ষ ফরাসীকে হত্যা করার অধিকার রয়েছে। কিন্তু মুসলিমরা এখনও পর্যন্ত চোখের বদলে চোখ নীতি নিয়ে চলেনি। যদিও পরে তার টুইট ডিলিট করে দেয় টুইটার।

মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) কার্টুন প্রদর্শনের প্রতিবাদে ক্ষুব্ধ এক ব্যক্তি ফরাসি এক শিক্ষকের মাথা কেটে হত্যা করে। এজন্য সকল মুসলিমকে দায়ী করার সমালোচনা করে মাহাথির বলেন, একজন মুসলমান হিসেবে আমি হত্যা সমর্থন করি না। মতপ্রকাশের স্বাধীনতায় বিশ্বাস করলেও মানুষকে অপমান করা তার মধ্যে পড়ে এটা আমি মনে করি না, । কারো কাছে গিয়ে তাকে আপনি অভিশাপ দিতে পারেন না নিশ্চয়ই, কারণ আপনি মতপ্রকাশের স্বাধীনতায় বিশ্বাস করেন।

ফরাসি প্রেসিডেন্টকে উদ্দেশ্য করে মহাথির বলেছেন, ম্যাক্রোঁ সভ্য নয়। স্কুল শিক্ষককে হত্যার জন্য় তিনি যেভাবে ইসলাম ধর্ম ও মুসলিমদের বদনাম করছেন তা সেকেলে ধ্যানধারণা প্রসূত। ইসলামের শিক্ষার সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়।

মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী বলেন, যে ধর্মেরই লোক হোক, মানুষ রেগে গেলে খুন টুন করে। ফরাসিরা তাদের ইতিহাসে বহু মানুষ মেরেছে। তাদের মধ্যে অনেকে ছিল মুসলিম। তাই মুসলিমদের রাগের অধিকার আছে, অতীতের গণহত্যার জন্য লক্ষ লক্ষ ফরাসিকে হত্যা করার অধিকার আছে। কিন্তু মুসলিমরা এখনও পর্যন্ত চোখের বদলে চোখ নীতি নিয়ে চলেনি।

তিনি বলেন, একজন রেগে গিয়ে যা করেছে, সে জন্য আপনারা যেহেতু সমস্ত মুসলমানকে এবং তাদের ধর্মকে দোষী করছেন, তাহলে মুসলমানদেরও ফরাসিদের শাস্তি দেয়ার অধিকার রয়েছে। ফরাসিরা এতদিন যত সব অন্যায় করেছে তার জন্য তাদের পণ্য বয়কট যথেষ্ট শাস্তি নয়। টুইট শেষ করেছেন মাহাথির।