আমেরিকার সাধারণ নির্বাচনকে সামনে রেখে গত ২৩ অক্টোবর শুক্রবার সন্ধ্যায় লিটল বাংলাদেশ, লস এঞ্জেলেসের দেশী চত্বরে বাংলাদেশী আমেরিকান ডেমক্রেটিক লীগ অব ক্যালিফোর্নিয়া এক নির্বাচনী প্রচারণা সভার আয়োজন করে। কমিউনিটির প্রবাসী বাংলাদেশীদের এ উদ্যোগে বাইডেনকে ৪৬তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে জয়যুক্ত করার জন্য প্রচারণা চলানো হয়।
সভায় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, লস এঞ্জেলেস কাউন্টির সুপারভাইজার পদপ্রার্থী কাউন্সিলম্যান হারব উইলসন এবং কংগ্রেস পদপ্রার্থী কংগ্রেসম্যান জিমি গোমেজ।
অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সংগঠনের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট কাজী মশহুরুল হুদা।
অনুষ্ঠানের শুরুতে দু’দেশের জাতিয় সঙ্গীত পরিবেশন করেন করোয়িান অপেরা সঙ্গীত শিল্পী এসতেহার জিন। তিনি বাংলাদেশের জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন করে সবাইকে মুগ্ধ করে দেন।
উল্লেখ্য, সঙ্গীত শিল্পী ও শিক্ষক শাহনাজ বুলবুল এর তত্ত্বাবধায়নে জাতীয় সঙ্গীত রপ্ত করেছেন এসতেহার জিন।
উক্ত সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন- বিভিন্ন দল ও সংগঠনের নেতৃবৃন্দ এবং স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ। সকলেই বাইডেনকে প্রেসিডেন্ট হিসেবে কেনো জয়যুক্ত করানো উচিত তা নিয়ে আলোচনা করেন।
এদের মধ্যে ছিলেন- সোহেল রহমান বাদল, সফি আহমেদ, রেজা শাহনেওয়াজ, টি জাহান কাজল, বদরুল আলম চৌধুরী, মাহাবুব রহমান শাহিন, এর্টনি ছাব্বির আহমেদ, ড্যানী তৈয়ব, ওয়াহিদ রহমান, জেবু জেবুন্নেসা প্রমুখ।
বাংলাদেশী আমেরিকান নতুন প্রজন্মের অংশগ্রহণ ছিল উল্লেখযোগ্য। প্রথম ভোটার হিসেবে ডেমক্রেটিকের পক্ষে জোরালো বক্তব্য রাখেন- মাহাজাবিন মাহতাব তিতলি, আইমন, আদনান তৈয়ব এবং মারিয়া জামান।
কংগ্রেসম্যান মি. জিমি গোমেজ তার বক্তব্যে বাইডেন-হ্যারিসকে ভোট দিয়ে দেশের গণতন্ত্রকে পুনরুদ্ধার করার আহ্বান জানান। এসময় তিনি নিজেও একজন ইমিগ্রেন্ট হিসেবে উল্লেখ করেন।
কাউন্সিলম্যান হারর ওয়েসন বাংলাদেশ কমিউনিটিকে প্রশংসা করে বলেন, ‘লস এঞ্জেলেসকে সমৃদ্ধ করার পিছনে লিটল বাংলাদেশ কমিউনিটির অবদান অনস্বীকার্য।’
অতিথি প্রার্থীদেরকে সংগঠনের পক্ষে এনডোজকৃত ক্রেস্ট তুলে দেন সংগঠনের পক্ষে সভাপতি মোহম্মদ শামীম হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মমিনুল হক বাচ্চু ও কোষাধক্ষ্য নাজমুল চৌধুরী।
সভার শুরুতে অতিথিদেরকে পরিচয় করিয়ে দেন মোহম্মদ শামীম হোসেন। তার প্রচেষ্টায় অত্যন্ত ব্যাস্ততার মধ্যেও অতিথিদের সভায় উপস্থিত করার ফলে সভার মান বৃদ্ধি পায়।
অনুষ্ঠানে সহ-সভাপতি সোহেল রহমান বাদল তার বক্তব্যের মাঝে বাংলা ব্যালট তুলে ধরেন।
বদল তার নিজস্ব সাউন্ড সিস্টেম দিয়ে অনুষ্ঠানকে প্রাণবন্ত করে তোলে। সভা শেষে সবাইকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন সাধারণ সম্পাদক মমিনুল হক বাচ্চু।
অনুষ্ঠান শেষে দেশীর স্বত্বাধীকারি ও সংগঠনের কোষাধক্ষ্য নজমুল চৌধুরীর আপ্যায়নে ছিল চমকপ্রদ ও নতুনত্ব। অভিনব এ আপ্যায়নের শীর্ষ দায়িত্বে ছিলেন- অন্যতম বারবিকিউ বিশেষজ্ঞ মোহম্মদ আলম। পরিবেশনায় ফ্রেন্স বাবা এবং সহযোগিতায় লিটন, ইমরান, ইকরাম সহ আরও অনেকে।