মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে মালয়েশিয়া কুয়ালালামপুর মহানগর আওয়ামী লীগ আহ্বায়ক কমিটির উদ্যোগে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

শনিবার সন্ধ্যায় কুয়ালালামপুরের হোটেল গ্র্যান্ড কন্টিনেন্টালের বল রুমে এ দোয়া ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

আহ্বায়ক কমিটির সদস্য প্রকৌশলী মোঃ রাহাদ উজ্জামান এবং কুয়ালালামপুর মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেনের যৌথ সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন কুয়ালালামপুর মহানগর আওয়ামী লীগ এর সাধারণ সম্পাদক আব্দুল বাতেন।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন মালয়েশিয়াস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস এর কাউন্সিলর (শ্রম) হেদায়েতুল ইসলাম মন্ডল।

আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন মালয়েশিয়া আওয়ামী লীগের সম্মানিত আহ্বায়ক রেজাউল করিম রেজা, মালয়েশিয়া আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক অহিদূর রহমান অহিদ, যুগ্ম আহ্বায়ক রাশেদ বাদল, সাবেক আওয়ামী যুবলীগ মালয়েশিয়ার আহ্বায়ক এ কামাল হোসেন চৌধুরী, প্রধান বক্তা কুয়ালালামপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি এস কে সেন্টু।

বুকিত বিনতাং শাখা আওয়ামী লীগ সহ- সভাপতি মোস্তাক হোসেন পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত, আহ্বায়ক কমিটির সদস্য প্রদীপ কুমার এর গীতা পাঠ করেন। ৫২’র ভাষা আন্দোলন ও ৭১ এর মহান মুক্তিযুদ্ধে নিহত শহীদদের স্মরণে এক মিনিট নিরবতা পালনের মাধ্যমে শুরু হওয়া অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন মালয়েশিয়া আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য হুমায়ুন কবির, কবি আলমগীর হোসেন, নূর মোহাম্মদ ভূইয়া, হুমায়ুন কবির আমির, শাখাওয়াত হোসেন, মাহবুবর রহমান, মুকবুল হোসেন, মানিক এবং মালয়েশিয়াস্থ সকল প্রাদেশিক শাখা কমিটির নেতৃবৃন্দ, বুকিতবিনতাং শাখার সধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর, পিজে শাখার সাধারণ সম্পাদক ইমাম হোসেন, ক্লাং শাখার সভাপতি সোহাগ, বাতুকেভ শাখার সভাপতি নাজিমুদ্দিন, পাংসাপুরী শাখার সভাপতি শাহিন, পুচং শাখার সভাপতি মনির হোসেন, রাওয়াং শাখার সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির, কেপং শাখার সভাপতি চান মিয়াসহ আরো অনেকে।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, কুয়ালালামপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য হৃদয়, সোহাগ, জহির, রাজু, সুমনসহ আরও অনেকে।

পরে সকল ভাষা শহীদ, বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবার, জাতীয় চার নেতাসহ সকল বুদ্ধিজীবী এবং সকল শহীদ মুক্তিযুদ্ধাদের স্মরণে ও তাদের আত্মার মাগফেরাত কামনায় এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেশ সু- স্বাস্থ ও দীর্ঘায়ু কামনায় বিশেষ দোয়া করা হয়। দোয়া ও মুনাজাত পরিচালনা করেন মালয়েশিয়া আওয়ামী লীগ আহ্বায়ক কমিটির সদস্য শফিকূর রহমান চৌধুরী। পরিশেষে নেতা কর্মীদের নৈশভোজের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘটে।