প্যারিসের বাংলাদেশ দূতাবাসে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উদযাপন ও মুজিববর্ষের ক্ষণগণনা উদ্বোধন করা হয়েছে।

শনিবার (১১ জানুয়ারি) প্যারিসের বাংলাদেশ দূতাবাস এক বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, শুক্রবার (১০ জানুয়ারি) অনুষ্ঠানের শুরুতে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণী পাঠ করা হয়। এরপর দিবসটির ওপর নির্মিত একটি প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শিত হয়।

এছাড়া ১০ জানুয়ারি ১৯৭২ সালে জাতির পিতার প্রদত্ত সম্পূর্ণ ভাষণ ও ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ফরাসি সাংবাদিক আরনো আমেলাঁর ধারণ করা ভিডিও ফুটেজ দেখানো হয়।

ফ্রান্সে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত কাজী ইমতিয়াজ হোসেন তার বক্তব্যের শুরুতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এছাড়া মুক্তিযুদ্ধে ৩০ লাখ শহীদদের আত্মত্যাগের কথা স্মরণ করেন তিনি।

রাষ্ট্রদূত বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী বাঙালির জাতীয় জীবনে সুমহান গৌরবে অভিষিক্ত। এই সময়কে উদযাপনের লক্ষ্যে দেশ-বিদেশে নানা কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। মুজিববর্ষে বাঙালি জাতি কৃতজ্ঞচিত্তে বঙ্গবন্ধুকে স্মরণ ও তাকে গভীরভাবে জানার সুযোগ পাবে।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন জাতিসংঘের শিক্ষা, সংস্কৃতি, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক অঙ্গ সংস্থা ইউনেস্কো তাদের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করে এ আয়োজনে সম্পৃক্ত হয়েছে। এটি বাংলাদেশের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ অর্জন।

কাজী ইমতিয়াজ হোসেন মুজিববর্ষব্যাপী দূতাবাস, ইউনেস্কো ও ফ্রান্সে গৃহীত বিভিন্ন অনুষ্ঠানের পরিকল্পনা সম্পর্কে উপস্থিত সবাইকে অবহিত করেন এবং প্রবাসী বাংলাদেশিদের এ আয়োজনে অংশগ্রহণের আমন্ত্রণ জানান। অনুষ্ঠানের শেষ অংশে প্যারিসে মুজিববর্ষের ক্ষণগণনা উদ্বোধন করা হয়।