দীর্ঘ এক বছর পর পঞ্চম বারের মত গত ২৭ অক্টোবর রবিবার অনুষ্ঠিত হয়ে গেল এল.এ.বাংলা ইউনিক ক্লাব আয়োজিত সামার ক্রিকেট টুর্নামেন্ট ২০১৯-র ফাইনাল। লস এঞ্জেলেসের উডলি ক্রিকেট মাঠে অনুষ্টিত হয় খেলাটি। গত চারটি বছর অত্যন্ত সফলতার সহিত সম্পূর্ণ করা হয়েছে সামার ক্রিকেট টুর্নামেন্টগুলো। ইতিমধ্যে বাঙ্গালী কমিউনিটিতে বেশ পরিচিতি লাভ করেছে ক্লাবটি। তারই ধারাবাহিকতায় গত ২০ জুন ২০১৯ থেকে শুরু হয়েছিল এল.এ.বাংলা ইউনিক ক্লাবের সামার ক্রিকেট টুর্নামেন্ট ২০১৯। মাঠের সংকট থাকায় বেশ দেরিতে হলেও জাঁকজমকভাবেই ফাইনাল খেলাটি অনুষ্ঠিত হয়ে গেলো।এল.এ.বাংলা ইউনিক ক্লাব বনাম ইউ.এস.বাংলা স্পোর্টিং ক্লাব ফাইনাল খেলায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। ৪ উইকেটের জয় পায় এল.এ.বাংলা ইউনিক ক্লাব। প্রথমে ব্যাট করে ইউ.এস.বাংলা স্পোর্টিং ক্লাব ব্যাট বিপর্যয়ে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮৫ রান তুলতে সক্ষম হয়। সর্বোচ্চ ৪৮ রান আসে অলরাউন্ডার ব্যাটসম্যান নাঈমের ব্যাট থেকে। এল.এ.বাংলা ইউনিক ক্লাবের আহম্মেদ মাহাদী ও কাজি আনিসুল হক রুবেল ৩টি করে উইকেট পান। সহজ জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করা এল.এ.বাংলা ইউনিক ক্লাব ৬ উইকেট হারিয়ে জয়ের বন্দরে পৌঁছায় এবং ২০১৯ আসরের চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করেন। সর্বোচ্চ ১৭ রান আসে আহম্মেদ মাহাদীর ব্যাট থেকে। ৪টি উইকেট পান রানার্স আফ দলের নাঈম। ম্যান অফ দ্যা ম্যাচ বিজয়ী দলের কাজি আনিসুল হক রুবেল, ম্যান অফ দ্যা টুর্নামেন্ট বিজয়ী দলের আহম্মেদ মাহাদী, টুর্নামেন্ট সেরা ব্যাটসম্যান ও বোলার রানার্স আফ দলের নাঈম। চারটি দলের সমন্বয়ে অনুষ্ঠিত হয় এবারের ক্রিকেট টুর্নামেন্ট। উক্ত ফাইনাল খেলা ও পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে অতিথী হিসেবে উপস্হিত ছিলেন ক্যালিফোর্নিয়া স্টেট আওয়ামীলীগ সভাপতি জনাব শফিকুর রহমান, স্টেট আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাউদার্ন ক্যালিফোর্নিয়া ক্রিকেট এসোসিয়েশন এর বোর্ড অফ ডিরেক্টর ডা.রবি আলম,বাংলাদেশের সাবেক কিংবদন্তি খেলোয়ার ও সাউদার্ন ক্যালিফোর্নিয়া ক্রিকেট এসোসিয়েশন এর নাজিম সিরাজী সহ আরও অনেকে।

উল্লেখ্য, এল.এ.বাংলা ইউনিক ক্লাব গঠিত হয়েছে কিছু তরুণ সংগঠকদের নিয়ে যাদের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য স্কুল কলেজ পড়ুয়া তরুণদেরকে সঙ্গে নিয়ে শারীরিক চর্চার পাশাপাশি আনন্দ বিনোদনের ব্যবস্হা করা। পুরো বছর জুড়ে সপ্তাহের প্রত্যেক শুক্রবার নিয়মিত খেলা হয়। বাংলাদেশের সংস্কৃতি, কৃষ্টি, কালচার ও ইতিহাসকে ঐ সকল তরুনদের মাঝে তুলে ধরতে সারা বছরই আয়োজন করা হয় বিভিন্ন ধরনের টুর্নামেন্ট।