Read Time:6 Minute, 28 Second

এফবিসিসিআইয়ের প্রেসিডেন্ট শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন বলেছেন, ‘কিছু কিছু ক্ষেত্রে অনিয়ম ও দুর্নীতি বিরাজ থাকলেও বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে অদম্য গতিতে। এগিয়ে চলার এই গতিকে ত্বরাণ্বিত করতে প্রবাসীদেরকেও এগিয়ে যেতে হবে।’

বুধবার (২৬ সেপ্টেম্বর) রাতে নিউইয়র্কে নবগঠিত ‘বাংলাদেশী আমেরিকান বিজনেস এসোসিয়েশন’ তথা বাবার এক সুধী সমাবেশে এফবিসিসিআই প্রেসিডেন্ট আরো বলেন, ‘বাংলাদেশে বিনিয়োগের অপার সম্ভাবনা বিরাজ করছে। সরকারের পক্ষ থেকে সকল সহায়তার দিগন্ত প্রসার করা হয়েছে। প্রবাসীদের ব্যাপারে সকলেই এখন যত্নবান।’ একই অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অর্থবিষয়ক উপদেষ্টা ড. মশিউর রহমান বলেন, ‘আগের দিন নেই। এখন প্রবাসীরাও দিপ্ত প্রত্যয়ে বিনিয়োগ করছেন বিভিন্ন সেক্টরে। এ নিয়ে কেউ যদি কোন সমস্যা অথবা আমলাতান্ত্রিক জটিলতা অনুভব করেন, তাহলে তারা যেন সরাসরি দূতাবাস/কন্স্যুলেটে যোগাযোগ করেন। তাহলেও সমস্যার সমাধানের পথ তৈরি হতে পারে।’

মশিউর রহমান বলেন, বিনিয়োগের জন্য ১০০টি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। প্রবাসীরা যার যার সুবিধাজনক অঞ্চলে সহজে সেখানে বিনিয়োগ করতে পারেন।

সরকারের প্রবাসী বিনিয়োগকারীদের জন্য ‘ওয়ান স্টপ সার্ভিস’ চালুর কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন,সরকার আগের যে কোন সময়ের চেয়ে এখন প্রবাসীদের বিনিয়োগের সহায়তা উদার। বিনিয়োগবান্ধব সরকারের এ সুযোগ প্রবাসীদের গ্রহণ করার উৎকৃষ্ট সময় এখনই।

এফবিসিআই সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন আরো উল্লেখ করেন, বাংলাদেশ অর্থনৈতিকভাবে খুব ভাল অবস্থানে। প্রবৃদ্ধির হার ৭ দশমিক ৮ শতাংশ। অপ্রতিরুদ্ধ গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। এ অগ্রগতি কেউ ঠেকিয়ে রাখতে পারবে না। বাংলাদেশ বর্তমান বিশ্বে দ্বিতীয় তৈরী পোষাক রপ্তানীকারক দেশ। বাংলাদেশ এখন বিশ্বে ৩য় শীর্ষ সবজি উৎপাদনকারী, চতুর্থ শীর্ষ চাল উৎপাদনকারী এবং তৃতীয় শীর্ষ মিঠা পানির মৎস উৎপাদনকারী দেশ। এ ধারা অব্যাহত থাকলে শিগগিরই বাংলাদেশ শীর্ষ রপ্তানিকারকের কাতারে উঠে আসবে। তিনি প্রবাসীদের বিনিয়োগের মাধ্যমে দেশ উন্নয়নে অংশ নেয়ার আহ্বান জানান।

নিউইয়র্ক সিটির কুইন্সে লাগোয়ার্ডিয়া ম্যারিয়ট হোটেলের বলরুমের এ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী এবং হোস্ট সংগঠনের প্রধান আমজাদ হোসেন সেলিম।

প্রবাসের জনপ্রিয় উপস্থাপক আশরাফুল হাসান বুলবুল এবং শামসুন্নাহার নিম্মির সঞ্চালনায় এ অনুষ্ঠানে বিনিয়োগে আগ্রহীদের তিক্ত অভিজ্ঞতার আলোকে আরো বক্তব্য রাখেন এবং মঞ্চে উপবেশন করেন পিপল এন টেকের প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী কর্মকর্তা ইঞ্জিনিয়ার আবু হানিপ, বাবার কর্মকর্তা ফাহাদ সোলায়মান, আহসান হাবীব, মূলধারার রাজনীতিক গোলাম মেরাজ, মোর্শেদ আলম, ফখরুল আলম, অভিনেত্রী শাওন, অভিনেতা ফেরদৌস প্রমুখ।

বাবা গঠনের প্রেক্ষাপট উপস্থাপনকালে আমজাদ হোসেন সেলিম বলেন, গত ডিসেম্বর মাসে জ্যামাইকায় স্টার কাবাবের মালিক শিবলী এন ইসলাম আক্রান্ত হন। তাকে বেদম প্রহার করা হয়। পুলিশ এলেও দুর্বৃত্তকে পাকড়াও করা সম্ভব হয়নি। এই মামলা পরবর্তীতে খারিজ হয়ে গেছে। কারণ, শিবলী হচ্ছেন মুসলমান এবং বাংলাদেশি। তার পক্ষে কেউ সোচ্চার হননি। এভাবে প্রায় দিনই বাংলাদেশি ব্যবসায়ীরা নানা ধরনের পরিস্থিতির শিকার হচ্ছেন। খুব কম সময়েই প্রবাসীদের সোচ্চার হতে দেখা যায়। অথচ এই কমিউনিটিতে শতাধিক সংগঠন রয়েছে। তারা নানা কথা বলেন, অঙ্গিকার করেন। কিন্তু কার্যত: কিছুই করা হয় না।’

ইঞ্জিনিয়ার আবু হানিফ বলেন, ‘আমরা সব সময়ই প্রিয় মাতৃভূমিতে বিনিয়োগে আগ্রহী। কিন্তু অনেকেই প্রত্যাশিত সহায়তা পাই না। অধিকন্তু নানা ধরনের সমস্যার মধ্যে পড়তে হয়।’

কুইন্স বরো প্রেসিডেন্ট প্রার্থী এলিজাভেথ ক্রাউলি তার শুভেচ্ছা বক্তব্যে বাংলাদেশী ব্যবসায়ীদের এই সংগঠনের মাধ্যমে যাবতীয় সুযোগ-সুবিধার পথ উম্মুক্ত হবে বলে উল্লেখ করেন।

অনুষ্ঠানে ব্যবসায়ী-নেতৃবৃন্দের মধ্যে আরো ছিলেন ফারহানা হানিপ, মাজেদা এ উদ্দিন, ডা. মাসুদুল হাসান, আলমগীর খান, নেহাল এ রহিম, তৈয়বুর রহমান হারুন, আব্দুস শহীদ, তারেক হাসান খান, নার্গিস আহমেদ, সবিতা দাস, আহসান হাবীব প্রমুখ।

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %
Previous post কানাডার সম্মানসূচক নাগরিকত্ব হারাচ্ছেন সু চি
Next post ইতালিতে পিরোজপুর জেলা সমিতির গ্রীল পার্টি ও মিলন মেলা
Close