কাজী মশহুরুল হুদা :
‌‌লিটল বাংলাদেশ কমিউনিটি অর্থ এই নয় যে, যারা লিটল বাংলাদেশস্থ এলাকায় বসবাস করে তাদেরকে উদ্দেশ্য করে বলা হয়। সমগ্র গ্রেটার লস এঞ্জেলেস কমিউনিটিকেই বোঝানো হয়। লিটল বাংলাদেশ- সাইন বোর্ড প্রক্রিয়ায় অনেকেই কমিউনিটির নেতা বনেছেন। কেউ স্ব-ঘোষিত, কেউ অন্যের দ্বারা ঘোষিত। কিন্তু কেউই নির্বাচিত নন। লস এঞ্জেলেস কমিউনিটিতে সর্বজনীনভাবে কোন প্রতিনিধি বা নেতা নেই। যিনি কমিউনিটির ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন।

লস এঞ্জেলেসে হাতে গোনা কয়েকটি সংগঠন আছে যারা সাংগঠনিকভাবে প্রতিনিধি নির্বাচিত করেন। তাদের মধ্যে বাফলা, জালালাবাদ এসোসিয়েশন, লিটল বাংলাদেশ প্রেস ক্লাব অন্যতম। কিন্তু কমিউনিটির প্রতিনিধি হিসেবে নির্বাচিত কেউ নেই। যা আছে তারা হচ্ছে- ‘গাঁয়ে মানে না আপনি মোড়ল’।

এই সমস্ত মোড়লের গুঁতায় কমিউনিটির সাধারণ প্রবাসী অতিষ্ঠ হওয়ায় বিগত মতামত সভায় সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে যে- লিটল বাংলাদেশ কমিউনিটির একটি প্রতিনিধি দল থাকা উচিত যারা কমিউনিটির মানুষদের দ্বারা নির্বাচিত হবেন এবং লিটল বাংলাদেশ প্রবাসী কমিউনিটির স্বার্থে ও দেশ ও জাতীর কল্যাণ্যে মূল ধারার মানুষদের সঙ্গে স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়াদি নিয়ে কর্মতৎপর হবে। লিটল বাংলাদেশ প্রেস ক্লাব একটি প্লাটফর্ম হিসেবে নির্বাচিত প্রতিনিধি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে করবে। অচিরেই একটি টাউন হল মিটিং এর মাধ্যমে প্রক্রিয়ার কাজ শুরু হবে।

কোন সংগঠন হিসেবে নয়, কোন দল বা গ্রুপ হিসেবে নয়, সমগ্র কমিউনিটির জন্য একটি নির্বাচিত প্রতিনিধি কমিউনিটির মাধ্যমেই গঠন করে। অনেকেই বিভিন্ন মতামত প্রকাশ করছেন। টাউন হল মিটিং এর মাধ্যমে পূর্নাঙ্গ গঠনতান্ত্রিক প্রক্রিয়া প্রনয়ন করা হবে। এধরণের উদ্যোগ এটাই প্রথম। সকলেই আশা করছেন নির্বাচিত প্রতিনিধি নির্মানে কমিউনিটিতে নতুন মেরুকরণ সৃষ্টি হতে পারে।