গত ২৮ জুন সন্ধ্যায় স্হানীয় চার্চ অফ সায়েন্টলজিতে ক্যালিফোর্নিয়া স্টেট আওয়ামীলীগ এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন। আগামী ১ লা জুলাই যুবলীগের খন্ডিত ও বিতর্কিত একটি অংশের আসন্ন সম্মেলনকে ঘিরে। আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে ক্যালিফোর্নিয়া স্টেট আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক ড.রবি আলম বলেন বঙ্গবন্ধু কন্যা ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে আমরা যারা প্রবাসে রাজনীতি করি আমরা যেনও ঐক্যবদ্ধ হয়ে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়ণ ও জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে পারি সেই লক্ষে কাজ করার। সেই নির্দেশে আমরা ক্যালিফোর্নিয়া স্টেট আওয়ামীলীগ ঐক্য প্রক্রিয়ার মাধ্যমে সহযোগী সংগঠনকে সাথে নিয়ে ক্যালিফোর্নিয়াতে শক্তিশালী একটি আওয়ামী পরিবার গড়ে তুলতে চাই ও অনেকটাই ঐক্যবদ্ধ। কিন্তু এই ঐক্য প্রক্রিয়া বাধাগ্রস্ত করতে যুবলীগের খন্ডিত একটি অংশ যে সম্মেলন ডেকেছেন ও বিনা অনুমতিতে ক্যালিফোর্নিয়া স্টেট আওয়ামীলীগের শীর্ষস্হানীয় নেত্রীবৃন্দের নাম ব্যবহার করছেন ও মিথ্যাচার করে বিভ্রান্ত করছেন সাধারণ প্রবাসীদেরকে আমি ড.রবি আলম ক্যালিফোর্নিয়া স্টেট আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক বলছি এই অসাংগাঠনিক তৎপরতায় ক্যালিফোর্নিয়া স্টেট আওয়ামীলীগের কোনও সমর্থন নাই। ক্যালিফোর্নিয়া স্টেট আওমীলীগ সভাপতি শফিকুর রহমান বলেন,বাঙ্গালী জাতীয়তাবাদ ও মুক্তিযুদ্ধের আদর্শ চর্চা এবং সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর কন্যা আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার লক্ষে প্রবাসের মাটিতে কাজ করে যাচ্ছি।আমাদের এই আদর্শ চর্চা বাস্তবায়ণে মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষের শক্তি ও আওয়ামী পরিবারের একতাই অনৈক্য ও দলীয় বিশৃংখলা আমাদের ঐক্য বাস্তবায়ণের প্রধান অন্তরায়। অত্যন্ত দুঃখের বিষয় ব্যক্তি স্বার্থে দলীয় পরিচয় ধারণ করে কেউ কেউ প্রবাসে দলীয় স্বার্থ বিসর্জন দিয়ে রাজনৈতিক বানিজ্যে লিপ্ত।ক্যালিফোর্নিয়া যুবলীগের নামে এমনি একটি অসৎ তৎপরতা লক্ষ করা যাচ্ছে।যেখানে ক্যালিফোর্নিয়া আওয়ামীগের নাম ব্যবহার করে যাচ্ছে কিন্তু ক্যালিফোর্নিয়া স্টেট আওয়ামীলীগের এই অসাংগাঠনিক তৎপরতায় কোনও সমর্থন বা সংশ্লিষ্টতা নেই। ক্যালিফোর্নিয়া স্টেট আওয়ামীলীগের সকল সদস্য ও সমর্থক গোষ্টীকে এই অপতৎপরতা থেকে বিরত থাকার অনুরোধ করছি। ক্যালিফোর্নিয়া আওয়ামী পরিবারের শক্তি বৃদ্ধির লক্ষে নিউ ইয়র্ক ও ঢাকার শীর্ষ নেত্রীবৃন্দের পরামর্শক্রমে অচিরেই উভয় যুবলীগের সকলের উপস্হিতিতে সাংগাঠনিক উপায়ে সম্মেলনের মাধ্যমে একটি শক্তিশালী যুবলীগ গঠন করা হবে।এই মর্মে আগামী ১ লা জুলাই কথিত সম্মেলনে আগত অতিথী যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের আহবায়ক এ কে এম তরিকুল হায়দারের ক্যালিফোর্নিয়াতে সম্মেলন করার কোনও বৈধতা নেই। একটি আহবায়ক কমিটির গঠনতন্ত্র অনুযায়ী কোনওভাবেই শাখা কমিটির সম্মেলন করার এখতিয়ার নেই। এটা দলীয় বিশৃঙ্খলা মাত্র। এদের বিরুদ্ধে শীর্ষ নেত্রীবৃন্দের সাথে আলোচনা সাপেক্ষে ব্যবস্হা গ্রহন করা হবে। উল্লেখ করা যেতে পারে ক্যালিফোর্নিয়া আওয়ামীলীগের বিভক্তির কারণে দুইটি যুবলীগের সৃষ্টি হয়েছিল একটির নেতৃত্বে কামরুল হাসান আরেকটির নেতৃত্বে সুবর্ণ নন্দী তাপস। স্টেট আওয়ামীলীগের ঐক্য প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে দুইটা যুবলীগকে একত্রিত করে সম্মেলনের মাধ্যমে শক্তিশালী একটি যুবলীগ গঠন করার চেষ্ঠা অব্যাহত ছিল গত কয়েক মাস ধরে। কিন্তু খন্ডিত একটি অংশ পদ পদবী হারানোর ভয়ে অসাংগাঠনিক তৎপরতায় সম্মেলনের নামে মেতে উঠেছে পদ পদবী বানিজ্যে।