ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় বলেছেন, ‘বিজেপি একটি ধর্মীয় জঙ্গি সংগঠন।’ তিনি আরো বলেন, ‘ওদের ঔদ্ধত্য আছে, উগ্রতা আছে, আছে ধর্ম বিদ্বেষ। ওরা কাউকেই পছন্দ করে না।’

বৃহস্পতিবার কলকাতার নেতাজি ইনডোর স্টেডিয়ামে তৃনমূল কংগ্রেসের সভায় এসব কথা বলেন মমতা বন্দোপাধ্যায়।

মমতা বলেন, ‘এ রাজ্যে বিজেপির কেউ কেউ বলছেন, এনকাউন্টার করে দেব। কেউ বলছেন গুলি চালাবেন, কেউ বলছেন বোমা মারবেন। আমি বলছি, ক্ষমতা থাকলে করে দেখান। মনে রাখবেন, গুলি আর বন্দুক নিয়ে রাজনীতি হয় না। পশ্চিমবঙ্গের মাটিতে সন্ত্রাস তৈরির চেষ্টা করছে বিজেপি। মানুষের টাকা লুট করছে। টাকা ছড়িয়ে অপপ্রচার ছড়াচ্ছে। আর বিজেপিকে সহযোগিতা করছে সিপিএম। প্রতিবার ভোটের সময় মদ আর মাংস খাইয়ে ওরা ভোটে জয় পেতে চায়। ওটা ওদের সংস্কৃতি।’

মমতা বলেন, ‘আমাদের দল তৃণমূল কংগ্রেসে ওসব কখনও হয় না। আমাদের পার্টিটা টাকা দিয়ে করা যায় না। জনসংযোগ না করলে তৃণমূল করার প্রয়োজন নেই।’

এদিন মমতা তাঁর নিজের দল তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা কর্মীদের আর ও সংঘবদ্ধ হওয়ার বার্তা দেন। মমতা বলেন, ‘দলের মধ্যে কোনো রকম কোন্দল সহ্য করা হবে না। কোনো রকম তোলাবাজি করা যাবে না। কোনো নেতা নিজেকে দলের থেকে বড় ভাবলে তৃণমূল ছেড়ে তাঁকে বেরিয়ে যেতে হবে। দলে থেকে পুরোনো কর্মীদের সঙ্গে নিয়ে চলতে হবে।’