প্রবাসে বাঙ্গালি সংস্কৃতি তুল ধরতে বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যদিয়ে হাসিবুল সারিফ ও রফিকুল হক রাজুর উদ্যোগে ২৯ এপ্রিল ২০১৮ রবিবার ইয়ারবা লিন্ডা শহরে প্রবাসী বাংলাদেশিরা মনোরম পরিবেশে উদযাপন করলো পহেলা বৈশাখ। বাঙ্গালির ঐতিহ্যবাহী সংস্কৃতি নবান্ন উৎসব ১৪২৫ বাংলাদেশের ন্যায় প্রবাসেও পালিত হচ্ছে।এবার পহেলা বৈশাখ বাঙ্গালির প্রাণের উৎসব দেশটি থেকে হাজার মাঈল দুরে বসবাস করেও বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যদিয়ে উদযাপন করা হয়েছে।বাংলার হাজার বছরের এ সংস্কৃতি,কৃষ্টি চর্চায় ও আয়োজনে যেমন ব্যস্ত দেশ প্রেমিক বাংলাদেশিরা, ঠিক তেমনই এসব উৎসব, আয়োজনে প্রবাসী দেশ প্রেমিকদেরও ব্যস্ততার শেষ নেই। পহেলা বৈশাখের নানা আয়োজনে মুগ্ধ ইয়ারবা লিন্ডা প্রবাসী বাংলাদেশিরা স্বদেশ সংস্কৃতির উৎসবস্থল-ও রূপ নিয়েছিল এক টুকরো বাংলাদেশে। ভূনা খিচুরী, সাদা ভাত, ইলিশ সহ হরেক রকমের বাহারি পিঠা নিয়ে স্বতস্ফুর্তভাবে অংশগ্রহণ করেন ইয়ারবা লিন্ডা বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশির গৃহিণীরা।মহিলা, শিশু ও বয়স্কদের অংশগ্রহণে ছিল বিভিন্ন খেলাধুলা এবং পুরস্কার বিতরণী। পহেলা বৈশাখের আয়োজক ও অংশগ্রহণ হাসিবুল শারিফ বলেন, প্রবাস মানে ব্যস্ততা, হাজারো ব্যস্ততার মাঝেও আমরা চেষ্টা করি স্বদেশ কৃষ্টি বিদেশের মাটিতে শক্ত হাতে ধরে রাখতে। রাজু বলেন, পহেলা বৈশাখের মতো একটি বাঙ্গালির প্রাণের উৎসবে অন্তত ষোলআনা বাঙ্গালি হওয়ার চেষ্টা করি আমরা। এভাবেই বাঙ্গালির প্রাণের উৎসব বছরের পর বছর প্রবাসে উদযাপন হোক, স্বদেশ কৃষ্টি বিদেশের মাটিতে চর্চা হোক এবং বিশ্বকে বাংলার সংস্কৃতি জানান দিতে বাঙ্গালীরা কাজ করুক, এটাই প্রত্যাশা করেন বাংলাদেশিরা।স্থানিয় শিল্পী আদনান খান, পলাশ আহম্মেদ নাহিদ সিমীম ও কাবেরী রহমানকে নিয়ে সৈয়দ এম হোসেন বাবু পরিচালনা মনোমুগ্ধকর সংগীত উপহার দেন উপস্থিত দর্শকদের।