খালেদা জিয়ার মামলার রায়ের পরিপ্রেক্ষিতে ক্যালিফোর্নিয়া বিএনপি আওয়ামী লীগ কিংবা তার কোন অঙ্গ সংগঠনের সাথে সম্মিলিত একুশের অনুষ্ঠানে অংশ নিবে না। এদিকে দলে ঘাপটি মেরে থাকা আওয়ামীপন্থীদের ক্যালিফোর্নিয়া বিএনপি থেকে বহিস্কার করা হয়েছে।
দলটির পক্ষ থেকে এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে- ৫ জানুয়ারি, বাংলাদেশের ইতিহাসে একটি কালো দিন, এদিন ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’। ২০১৪ সালের এই দিনে আওয়ামী জোট ছাড়া সকল রাজনৈতিক দলের বিরোধিতা ও অনুপস্থিতিতে দেশের ইতিহাসে কলঙ্কিত এক জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ১০ম জতীয় সংসদের ভোটারবিহীন এ নির্বাচন ছিলো নজিরবিহীন প্রহসনের নির্বাচন। যেখানে সংসদীয় ৩০০ আসনের মধ্যে প্রার্থী সংকটে ১৫৪টিতেই কোনো ভোট অনুষ্ঠিত হয়নি। কলঙ্কিত এ নির্বাচনের আগে তুমুল আন্দোলনের মুখে শাসকদল আওয়ামী লীগ একে সংবিধান রক্ষার এবং পরে দ্রুত সময়ে নতুন নির্বাচনের প্রতিশ্রুতি দেয়। কিন্তু আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন বর্তমান ‘অবৈধ সরকার’ সে প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করে চলেছে। সেই থেকে প্রতিবছর ৫ জানুয়ারি ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ পালন করে আসছে বিএনপি ও দেশের অন্যান্য রাজনৈতিক দলগুলো।

ও বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়- গত ১৮ অক্টোবর লস এঞ্জেলেসে ৫ জানুয়ারীর অবৈধ নির্বাচনের ফসল অবৈধ আওয়ামী সরকারের অর্থমন্ত্রী আওয়ামী লীগ নেতা আবুল মাল আব্দুল মুহিতকে সম্বর্ধনার আয়োজন, আমন্ত্রণ-নিমন্ত্রণ-প্রচারণা ও স্বত:স্ফূর্ত অংশ গ্রহণের জন্য ক্যালিফোর্নিয়া বিএনপি সৈয়দ নাসিরুদ্দিন জেবুল, বদরুল আলম মাসুদ, লায়েক আহমেদ ও শাহীন হককে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল ক্যালিফোর্নিয়া শাখা থেকে বহিস্কার করেছে।